[english_date], [bangla_day]

পিরোজপুরে ফোন করলেও আসেনি ডাক্তার, চিকিৎসা না পেয়ে গৃহবধূর মৃত্যু!

আপডেট: August 4, 2019

নিউজ ডেস্ক :: পিরোজপুরের ভান্ডারিয়ায় ডাক্তারের অবহেলায় নারগিস আক্তার (৪৫) নামের এক গৃহবধূর মৃত্যু হয়েছে বলে অভিযোগ উঠেছে।

নারগিস আক্তার পার্শ্ববর্তী ঝালকাঠি জেলার রাজাপুর উপজেলার তারাবুনিয়া গ্রামের শাহ আলম মীরের স্ত্রী।

রোববার সকালে ১০০ শয্যাবিশিষ্ট ভান্ডারিয়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে তার মৃত্যু হয়।

 

এ ঘটনায় মৃতের স্বামী শাহ আলম মীর ডাক্তারের অবহেলার কারণে তার স্ত্রীর মৃত্যু হয়েছে উল্লেখ করে উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকতার কাছে একটি লিখিত অভিযোগ দিয়েছেন।

অভিযোগ সূত্রে জানা গেছে, শনিবার বেলা ১১টার দিকে নারগিস আক্তার জ্বর নিয়ে ১০০ শয্যাবিশিষ্ট ভান্ডারিয়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি হন। রোববার ভোর ৫টার দিকে তার অবস্থা খুবই গুরুতর হওয়ায় স্বজনরা কর্তব্যরত ডাক্তারকে ফোন করেন। কিন্তু তিনি আসেন নাই। পরে সেখানেই ওই গৃহবধূর মৃত্যু হয়।

এ বিষয়ে উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা জহিরুল ইসলাম জানান, যে রোগী মারা গেছেন তিনি মূলত দীর্ঘদিন ধরেই অসুস্থ ছিলেন। তাছাড়া তিনি কোনো রোগেরই পরীক্ষা-নিরীক্ষা ছাড়াই দুর্বল অবস্থায় ভর্তি হয়েছিলেন। তারপরও এ ব্যাপারে ডাক্তারের অবহেলা আছে কি-না তা খতিয়ে দেখা হচ্ছে।

  • ফেইসবুক শেয়ার করুন